কেবল ৮ নয়, এলো আইফোন ১০

170
0
SHARE

নতুন আইফোন উন্মোচন করেছে অ্যাপল। মঙ্গলবার অ্যাপলের নতুন কার্যালয়ের স্টিভ জবস থিয়েটারে তিনটি নতুন আইফোন উন্মোচন করেছে মার্কিন টেক জায়ান্ট প্রতিষ্ঠানটি।

নামকরণের ক্ষেত্রে প্রচলিত রীতির বাইরে আইফোন ৭এস ও ৭এস প্লাস বাদ দিয়ে নতুন আইফোন ৮ ও ৮ প্লাস উন্মোচন করেছে অ্যাপল। এর পাশাপাশি আইফোনের দশ বছরপূর্তি উপলক্ষ্যে নতুন আইফোন টেন উন্মোচন করেছে প্রতিষ্ঠানটি। টেন নামকরণ করা হলেও রোমান রীতিতে X অক্ষর ব্যবহার করে নামকরণ করা হয়েছে।

বাহ্যিক দিক থেকে দেখলে আইফোন ৭ ও ৭ প্লাস এর সঙ্গে খুব বেশি পার্থক্য নেই আইফোন ৮ ও ৮ প্লাস-এর। এ ক্ষেত্রে নকশায় পরিবর্তন আনতে ডিভাইসের পেছনে অ্যালুমিনিয়ামের পরিবর্তে গ্লাস ব্যবহার করেছে প্রতিষ্ঠানটি। অ্যাপল দাবি করছে এটি তাদের ডিভাইসগুলোতে ব্যবহার করা সবচেয়ে মজবুত গ্লাস।

বাহ্যিক পরিবর্তন খুব বেশি না হলেও নতুন আইফোন ৮-এর ভেতরে প্রায় সবগুলোই নতুন যন্ত্রাংশ ব্যবহার করেছে অ্যাপল। ডিভাইসগুলোতে ব্যবহার করা হয়েছে প্রতিষ্ঠানের নতুন এ১১ বায়োনিক চিপ। এর সঙ্গে নতুন গ্রাফিক্স প্রসেসরও যোগ করেছে প্রতিষ্ঠানটি।
আইফোন ৭ প্লাস-এর ডুয়াল ক্যামেরা আপডেট করা হয়েছে আইফোন ৮-এ। আর পেছেনে গ্লাস ব্যবহার করায় এবার ডিভাইসগুলোতে ওয়্যারলেস চার্জিং প্রযুক্তি যোগ করেছে অ্যাপল। নতুন আইফোন ৮-এর ব্যতিক্রমী ফিচার বলতে শুধু ওয়্যারলেস চার্জিং-ই।

নতুন আইফোন ৮-এ খুব বেশি বাহ্যিক পরিবর্তন আনা না হলেও কার্যকারিতায় আইফোন ৭-এর চেয়ে অনেক বেশি এগিয়ে থাকার দাবি করেছে অ্যাপল।

আইফোন টেন আইফোন টেন আইফোন-৮ এ বেশি বাহ্যিক পরিবর্তন দেখা না গেলেও আইফোন এক্স দিয়ে গ্রাহকের মন ভরানোর চেষ্টা করেছে অ্যাপল। ডিভাইসটি দিয়ে আবারও স্মার্টফোনে বিপ্লবী পরিবর্তন আনার চেষ্টা করেছে তারা। এটিকে ভবিষ্যত প্রজন্মের স্মার্টফোন দাবি করেছে প্রতিষ্ঠানটি।
যেমনটা গুজব ও ফাঁস হওয়া ছবি থেকে ধারণা পাওয়া গিয়েছিল বাস্তবের আইফোন এক্স-এও তার প্রতিফলন দেখা গেছে। নতুন আইফোন টেন-এর সামনে প্রায় পুরোটা অংশেই পর্দা রাখা হয়েছে। নতুন পর্দার কোণাগুলো গোলাকার করা হয়েছে। আর ওপরে পর্দার কিছুটা অংশ বাদ দিয়ে বসানো ক্যামেরা, লাইট সেন্সর, ইনফ্রারেড ক্যামেরা-সহ আরও বেশ কিছু সেন্সর।

নতুন এ ডিভাইসটির পর্দার রেজুলিউশানেও পরিবর্তন আনা হয়েছে। ডিভাইসটিতে ব্যবহার করা হয়েছে সুপার রেটিনা ডিসপ্লে।

আইফোন টেন আইফোন টেন আইফোন ৮-এর মতোই আইফোন টেন-এর পেছনে ব্যবহার করা হয়েছে গ্লাস। আর এই ডিভাইসের ভেতরের যন্ত্রাংশও রাখা হয়েছে আইফোন ৮-এর মতো।
সামনে পুরোটা পর্দা রাখায় আইফোন টেন থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে হোম বাটন। ফলে পর্দার নীচের অংশ থেকে ওপরের দিকে সোয়াইপ করে হোমে ফেরত আসতে হবে ব্যবহারকারীকে। আর মাল্টিটাস্ক খুলতে হলে ব্যবহারকারীকে নীচ থেকে সোয়াইপ করে কিছুক্ষণ ধরে রাখতে হবে।

আগে হোম বাটন কিছুক্ষণ চেপে ধরে রাখলে অ্যাপলের ভয়েস অ্যাসিস্টেন্ট সেবা সিরি চালু হতো। এবার সিরি চালু করতে হলে গ্রাহককে পাওয়ার বাটন চেপে ধরে রাখতে হবে।

ছবি- অ্যাপল ছবি- অ্যাপল হোম বাটনের সঙ্গে টাচ আইডিও বাদ দেওয়া হয়েছে আইফোন এক্স থেকে। টাচ আইডির শূণ্যতা পূরণ করতে এতে নতুন ফেইস আইডি ফিচার এনেছে অ্যাপল। এর মাধ্যমে ব্যবহারকারী আইফোনের দিকে তাকালেই সেটি আনলক হয়ে যাবে। অন্ধকারেও কাজ করবে এই টাচ আইডি। এমনকি গ্রাহক তার চুলের স্টাইল বা বেশ পরিবর্তন করতে পারলেও তার মুখ শণাক্ত করতে পারবে নতুন ফেইস আইডি।
ফেইস আইডিতে সাফল্য আনতে নিউরাল নেটওয়ার্ক প্রযুক্তি ব্যবহার করেছে অ্যাপল। আর এর জন্য একটি নতুন বায়োনিক নিউরাল চিপ ব্যবহার করেছে তারা।

নতুন আইফোনগুলোর সঙ্গে ওয়্যারলেস চার্জিং সুবিধা যোগ করায় অনুষ্ঠানটিতে এয়ারপাওয়ার নামে ওয়্যারলেস চার্জিং প্যাডও উন্মোচন করেছে অ্যাপল। এতে আইফোনটি রেখে দিলেই সেটি চার্জ হতে থাকবে। শুধু আইফোনই নয় এর পাশাপাশি অ্যাপল ওয়াচ সিরিজ ৩ এবং এয়ারপডস একসঙ্গে রাখা হলেও সেগুলো চার্জ হবে।

ছবি- অ্যাপল ছবি- অ্যাপল ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে আইফোন ৮ ও ৮ প্লাস-এর অর্ডার নেবে অ্যাপল; সরবরাহ করবে ২২ সেপ্টেম্বর থেকে। দাম শুরু হচ্ছে ৬৯৯ ও ৭৯৯ মার্কিন ডলার থেকে।
আর নতুন আইফোন এক্স-এর দাম শুরু হচ্ছে ৯৯৯ মার্কিন ডলার থেকে। ২৭ অক্টোবর অর্ডার নেওয়া শুরু করে সরবরাহ করা হবে ৩ নভেম্বর থেকে।

অনুষ্ঠানটিতে নতুন আইফোন ছাড়াও অ্যাপল ওয়াচ সিরিজ ৩ ও অ্যাপল টিভি ৪কে উন্মোচন করেছে মার্কিন প্রযুক্তি জায়ান্ট প্রতিষ্ঠানটি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here